রবিবার, ০৭ মার্চ ২০২১, ০৬:১৮ পূর্বাহ্ন

করোনাকালে সাধারণ সর্দি-কাশি আর গলাব্যথায় করনীয়

রিপোটারের নাম
  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ১১ এপ্রিল, ২০২০
  • ২৭৫ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

বাংলাদেশে প্রতিবছর মার্চ-এপ্রিল মাসে সর্দি-কাশির প্রাদুর্ভাব থাকে বলছেন চিকিৎসকরা। তাদের ভাষায়, এটি সিজনাল ইনফ্লুয়েঞ্জা। তবে চলমান করোনাকালে সাধারণ এই সর্দি-কাশি আর গলাব্যথাই ব্যাপক আতঙ্কের কারণ হয়ে দাঁড়ায়।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ঋতু পরিবর্তনের সময় বাংলাদেশের মতো দেশে সর্দি-কাশি একটি সাধারণ বিষয়।

এদিকে, বাংলাদেশে সর্দি-কাশির মতো সাধারণ স্বাস্থ্য সমস্যায় যারা ভুগছেন, তাদের চিকিৎসা নিশ্চিত করতে হাসপাতালে পৃথক ব্যবস্থা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য বিভাগ ।

সরকারের স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আবুল কালাম আজাদ এক সংবাদ ব্রিফিংয়ে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

চিকিৎসকদের মতে,  নিদ্রিষ্ট  কিছু উপায় অনুসরণ করলে দ্রুত সময়ে সর্দি-জ্বর ভাল করা সম্ভব।

চলোন তাহলে জেনে নেওয়া যাক, বিশেষজ্ঞদের মতে কি সেই উপায়গুলো-

১. টিকা/ভ্যাক্সিন
ফ্লু থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য প্রতিবছর টিকে নিতে পারেন। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, সাধারণত গর্ভবতী নারীদের জন্য এটি খুব গুরুত্বপূর্ণ। এছাড়া ছয়মাস থেকে পাঁচ বছর বয়সী শিশুদের জন্যও এটি বেশ গুরুত্বপূর্ণ।

২. নিদ্রিষ্ট সময় পরপর হাত ধোয়া
নিয়মিত হাত পরিষ্কার রাখলে ফ্লু ছাড়াও অন্যান্য সংক্রমণ থেকে নিজেকে রক্ষা করা যায়। সাবান দিয়ে ভালো মতো হাত ধোয়ার পর তা মুছে শুকনো করে নেবার পরামর্শ দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

৩. চোখ-নাক-মুখ স্পর্শ করা থেকে বিরত থাকা
এই তিনটি স্থান দিয়ে মূলত শরীরে জীবাণু প্রবেশ করে। শ্বাস-প্রশ্বাসের মাধ্যমে যা কিছু ভেতরে প্রবেশ করছে, তার সবকিছু নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব নয়। তবে মুখ হাত না দিয়ে সংক্রমণের ঝুঁকি অনেকটা কমিয়ে আনা যেতে পারে।

৪. অসুস্থদের সংস্পর্শ এড়িয়ে চলা
ফ্লু একটি সংক্রামক বিষয়। যেখানে জনসমাগম বেশি সেখানে ফ্লু বেশ দ্রুত ছড়ায় – এর মধ্যে রয়েছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, পাবলিক ট্রান্সপোর্ট, হাসপাতাল এবং যে কোন ধরণের গণজমায়েত। ফলে এ ধরণের জমায়েত এড়াতে পারলে অসুস্থ ব্যক্তির সংস্পর্শে আসার ঝুঁকি কমে।

৫. অসুস্থ বোধ করলে বাসায় থাকা
আপনি যদি ফ্লু’র মাধ্যমে অসুস্থ হন, তাহলে অন্যদের সংস্পর্শে গেলে তারাও অসুস্থ হতে পারেন।
যারা ক্যান্সার বা হৃদরোগে ভুগছেন কিংবা এইচআইভি পজিটিভ – তাদের জন্য এটি বেশি ঝুঁকি তৈরি করতে পারে। ফ্লু হওয়া মাত্র নিজেকে অন্যদের কাছ থেকে বিচ্ছিন্ন রাখলে ভাইরাসের বিস্তার থামানো সম্ভব।

উল্লেখ্য, ঠাণ্ডার একটি সাধারণ উপসর্গ গলা ব্যথা। লবণ পানি দিয়ে গার্গল করা অথবা লেবু ও মধু দিয়ে হালকা গরম পানীয় তৈরি করে পান করলে গলা ব্যথার দ্রুত উপশম হতে পারে।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© zeronews24 All rights reserved 2020.
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
themebazar-2281